08, Aug-2022 || 10:53 am
Home কলকাতা একটা খবরের প্রেক্ষিতে ইআইএমপিডিএ-র ঘরের কেচ্ছা এসে পৌঁছল আমজনতার দরবারে

একটা খবরের প্রেক্ষিতে ইআইএমপিডিএ-র ঘরের কেচ্ছা এসে পৌঁছল আমজনতার দরবারে

হীরক মুখোপাধ্যায় (১৬ মে ‘২২):- সম্প্রতি এক বাংলা দৈনিক পত্রিকায় ইস্টার্ন ইণ্ডিয়া মোশন পিকচার ডিরেক্টরস অ্যাসোসিয়েশন (ইআইএমপিডিএ)-এর প্রাক্তন সম্পাদক বিমল দে-র এক উক্তির পরিপ্রেক্ষিতে আজ কার্যত ইআইএমপিডিএ-র ঘরের কেচ্ছা এসে পৌঁছল আমজনতার দরবারে।

ইআইএমপিডিএ-র তরফ থেকে আজ কোলকাতা প্রেস ক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে দ্ব্যর্থহীন ভাষায় জানানো হয়, “বিমলবাবু যা বলেছেন তা সবাই মিথ্যে।”
যদিও সেদিনের খবর কাগজ পড়লে বিমলবাবুর জবানীতে শুধু এইটুকু দেখা যায়, ‘আইনত এখনো আমি সেক্রেটারি। কিন্তু ফেডারেশন পেশির জোর বা ক্ষমতা দেখিয়ে একজনকে সেক্রেটারি পদে বসিয়েছে। আমার মামলা আদালতে চলছে।”

আজ কোলকাতা প্রেস ক্লাবে ইআইএমপিডিএ-র তরফে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে সংগঠনের একঝাঁক প্রাক্তন ও বর্তমান কার্যকর্তা বিমলবাবুর উপর বিষোদগার করে অভিযোগ করেন, “তিনি নিজের স্বার্থ সিদ্ধির জন্য কাউকে কিছু না জানিয়ে সংগঠনের ‘বাই লজ’ পর্যন্ত বদলে দিয়েছেন। তাঁর তৈরি করা নিয়মাবলী অনুযায়ী অনেকটা ঠুঁটো জগন্নাথ-এর ভূমিকায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে সভাপতি-র পদকে।”
সংগঠনের একাধিক সদস্য আজ সাংবাদিকদের সামনে নিজেদের সংগঠনের মিনিটস বুক দেখিয়ে জানান, “বিমলবাবু কখনোই টানা কুড়ি বছর সংগঠনের সম্পাদক ছিলেননা। উনি সংবাদমাধ্যম যে সকল তথ্য পরিবেশন করেছেন তা যেমন ভ্রমাত্মক তেমনই মিথ্যায় পরিপূর্ণ।”

আজ ইআইএমপিডিএ-র পক্ষ থেকে বিমলবাবুর উপর স্পষ্ট অভিযোগ হেনে বলা হয়, ‘আমাদের সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক থাকাকালীন উনি সকলের অগোচরে যে সকল আর্থিক দুর্নীতি এবং বিভিন্ন অনৈতিক ক্রিয়াকলাপ চালিয়ে ছিলেন তার জন্য গত ২০ শে ডিসেম্বর ২০২০ তে তাঁকে সমস্ত বৈধ পদ্ধতি মেনে এবং সর্বসম্মতি অনুযায়ী বহিষ্কার করা হয়েছিল।’

যাঁর নামে আজ বিকালে সরগরম হয়ে উঠেছিল প্রেস ক্লাব সেই বিমল দে-কে যদিও হাজার চেষ্টা করেও ফোনে পাওয়া যায় নি।

ইআইএমপিডিএ বা বিমল দে যে যাই বলুক না কেনো এ ঘটনা জলের মতো পরিষ্কার ডাল মে বহুত কুছ কালা হ্যায়। আর সেই কারণেই ঘটনাটা এখন আদালতের বিচারাধীন।
আর ঘটনাটা যেহেতু আদালতের আঙিনায় রয়েছে তাই সংবাদমাধ্যমের সামনে ইআইএমপিডিএ হাজার অভিযোগ তুলে ধরলেও সংবাদমাধ্যম এখানে কার্যত মৌন থাকতে বাধ্য।

তবে ঘটনা যাই ঘটে থাকুক না কেনো, যেভাবে সংস্থার ভেতরের ময়লা ফুটন্ত লাভা আকারে বাইরে বেরিয়ে এসেছে, তা না বেরলেই ভালো ছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

নিজের বৌভাতের অনুষ্ঠানের পরের দিন গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা

প্রদীপ মজুমদার, নদীয়াঃ নদীয়ার নাকাশিপাড়া থানার গাছা এলাকায় নিজের বৌভাতের অনুষ্ঠানের পরের দিন গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করলেন এক যুবক।অসিত ঘোষ(৩২) নামে...

রহস্যজনকভাবে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা

মহঃ শাহজাহান আনসারী, বাঁকুড়া :- রহস্যজনকভাবে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটলো ছাতনার জিড়রা গ্রামে, মৃতার পরিবারের অভিযোগ...

রাজ্য সরকারের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ভাতারে বিজেপির পথসভা

মনোজ কুমার মালিক,ভাতাড়: চোরদের জেলে ভরো, মমতা গদি ছাড়ো । এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ভারতীয় জনতা যুবমোর্চার...

বিয়ের ছয় মাসের মাথাতেই বিষপান করে আত্মহত্যা এক কিশোরীর

প্রদীপ মজুমদার, নদীয়াঃ বাড়ি থেকে পালিয়ে প্রেম করে বিয়ে করে শেষ পর্যন্ত আর বেশি দিন সংসার করা হল না এক কিশোরীর। বিয়ের...