29, Oct-2020 || 12:41 pm
Home সুস্বাস্থ্য রক্তদান মহৎ দান কারণ এক বিন্দু রক্তই পারে মানুষের জীবনের বাঁচাতে

রক্তদান মহৎ দান কারণ এক বিন্দু রক্তই পারে মানুষের জীবনের বাঁচাতে

অর্পিতা সিনহা,বাঁকুড়া(১৪মে): রক্তদানের মতো মহৎ কাজ আর পৃথিবীতে কিছুই নেই। রক্তদান করলে মানসিক তৃপ্তি ও আনন্দ লাভ করা সম্ভব হয় এবং মানুষের মানবিক দিকটিও ভালো ভাবে বিকশিত হয়। কিন্তু আমরা অনেকে সচেতনতার অভাবে এবং কিছু ভুল ধারণার বশবর্তী হয়ে রক্তদানের মতো ভালো কাজ থেকে বিরত হই। একজন সুস্থ স্বাভাবিক ১৮-৪৫ বছর বয়সী মানুষ ১২০ দিন অন্তর রক্ত দান করে আরেকজন মানুষের জীবন বাঁচাতে পারে।কোন সুস্থ মানুষের শরীর থেকে ২৫০ সিসি রক্ত বের করে নেওয়ার পর সেটা পূরণ হতে ৭ দিনের বেশি সময় লাগে না। তাছাড়া শরীরের বাড়তি রক্ত কোন কাজেও লাগে না।এই প্রসঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার এক নাগরিক জেমস হ্যারিসন এর কথা বলতেই হয় তিনি ৮১ বছর বয়স পর্যন্ত ১১৭৩ বার রক্ত দান করে ২০লক্ষ শিশুর প্রাণ বাঁচিয়ে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের নিজের নাম লিখিয়েছিলেন।
বিভিন্ন কারণে শরীরে রক্তের ঘাটতি দেখা যায় যেমন দুর্ঘটনাজনিত কারণে, ক্যান্সার,কোনো অস্ত্রোপচার, থ্যালাসেমিয়া ইত্যাদি।কোন মানুষের কখন যে বাড়তি রক্তের প্রয়োজন হবে তা আগে থেকে বলা কখনোই সম্ভব নয়। তাই শরীর যদি সুস্থ থাকে অর্থাৎ উচ্চ রক্তচাপ,ডাইবেটিস বা অন্য কিছু ভাইরাস ঘটিত সংক্রমণ যদি না থাকে তাহলে রক্তদান করা যেতেই পারে ।শুধু রক্তদানই নয় রক্ত সংরক্ষণও একান্তভাবে প্রয়োজন। তবে যেকোনো মানুষের রক্ত যেকোনো মানুষের শরীরে প্রবেশ করানো যায় না এ, বি, এ বি,ও এই গ্রুপ অনুযায়ী নির্ধারিত হয় কোন মানুষের শরীরে কোন রক্ত প্রবেশ করানো যাবে।প্রত্যেকটি রক্তের গ্রুপ আবার পজেটিভ ও নেগেটিভ এই দুই ভাগে বিভক্ত।এদের মধ্যে কিছু বিরল রক্তের গ্রুপ রয়েছে যেমন ও নেগেটিভ। বিজ্ঞানীদের মতে বিশ্বের বিরলতম রক্তের গ্রুপ হল গোল্ডেন ব্লাড। বিগত ১০ বছরে বিশ্বে মাত্র ৪৩ জন মানুষের মধ্যে আর এইচ নাল বা গোল্ডেন গ্রুপের রক্তের খোঁজ মিলেছে।এই গ্রুপের মানুষেরা যে কোন মানুষকে রক্ত দিতে পারে কিন্তু সবার থেকে রক্ত নিতে পারে না।আরেকটা বিরল রক্তের গ্রুপ হলো বোম্বে গ্রুপ বাএইচ এইচ। সাধারণত প্রতি দশ হাজার ভারতীয় মধ্যে একজনের এই গ্রুপের রক্ত দেখা যায়। রক্ত কণিকা,শ্বেত কনিকা,অনুচক্রিকাও প্লাজমা উপর নির্ভর করে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় হয়। আর বেঁচে থাকার জন্য রক্তের কোন বিকল্প নেই।কোন মানুষের শরীরে কোনো কারণে রক্তের ঘাটতি দেখা দিলে অন্য মানুষের রক্ত দিয়ে সেই ঘাটতি পূরণ করা হয়। তাই রক্তদানের মতো মহৎ কাজ আর কিছুই হয়না।
বতর্মানে কোরনার মতো মহামারীর দাপটে মানুষের অবস্থা খুবই শোচনীয়।তাই ব্লাড ব্যাংক গুলিতে রক্তের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। ব্লাড ব্যাংক গুলিতে রক্ত সংকট যাতে না ঘটে তাই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুলিশ দের রক্তদান করতে অনুরোধ করেন। আর পুলিশ প্রশাসনও শুধু মুখ্যমন্ত্রীর কথা রাখতেই নয় নিজেদের মানবিক আবেদনে সাড়া দিয়ে এক মানুষের রক্ত বাঁচে আরেক মানুষের প্রাণ এই কথাটা কে প্রাধান্য দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় রক্তদান শিবিরের আয়োজন করেছেন এবং নিজেরাই একমাস ব্যাপী রক্তদান করেছেন।

   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল-এর জন্মতিথি থেকে আহমেদাবাদ ও কেভাডিয়া-র মধ্যে চালু হচ্ছে সিপ্লেন পরিষেবা

হীরক মুখোপাধ্যায় (২৮ অক্টোবর '২০):- আগামী ৩১ অক্টোবর সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল-এর জন্মতিথিকে স্মরণে রেখে আহমেদাবাদ-এর 'সবরমতী নদী' থেকে গুজরাতে অবস্থিত কেভাডিয়া-র 'স্ট্যাচু...

প্রতিবাদ দিবস পালন করতে গিয়ে তৃণমূলী দুষ্কৃতীদের আক্রমণের শিকার ভারতীয় মজদুর সংঘ-র প্রদেশ নেতৃত্ব

হীরক মুখোপাধ্যায় (২৮ অক্টোবর '২০):- কেন্দ্রীয় সরকারের শ্রমিক বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে আজ পূর্ব মেদিনীপুর জেলার নন্দীগ্রাম অঞ্চলে তৃণমূল কংগ্রেস...

অবস্থান বিক্ষোভ শ্রমিকদের

মলয় সিংহ, বাঁকুড়া :একাধিক দাবি দাওয়া নিয়ে বাঁকুড়ার বড়জোড়া ব্লকের হাটআসুড়িয়ায় কালিমাতা ভেপার প্রাইভেট লিমিটেড নামে রেলের যন্ত্রাংশ তৈরির কারখানার সামনে অবস্থান...

নারীর ক্ষমতায়ন:

অর্পিতা সিনহা,বাঁকুড়া(২৭অক্টোবর): বিংশ শতাব্দীর বিজ্ঞানের জয়যাত্রা পেরিয়ে একবিংশ শতাব্দীতে জ্ঞান বিজ্ঞানের আলোকে আজ আমরা অনেকটাই পরিপূর্ণতা লাভ করেছি। সভ্যতার যে অগ্রগতি ও...