11, May-2021 || 07:37 pm
Home জেলা বিশ্ব বই দিবস

বিশ্ব বই দিবস

অর্পিতা সিনহা,বাঁকুড়া(২৩ এপ্রিল,২০২১ ): আজ বিশ্ব বই দিবস। ইংরেজি লেখক উইলিয়াম শেক্সপিয়র,পেরুভীয় লেখক ইনকা গার্তিলাসো দে লা ভেগা,এবং স্পেনীয় লেখক মিগেল দে থের্ভান্তে সহ বিভিন্ন বিশিষ্ট লেখকদের সম্মান জানানোর জন্য তাঁদের জন্ম বা মৃত্যুবার্ষিকীর দিনকে বিশিষ্ট দিন হিসাবে ধরে ইউনেস্কো সিদ্ধান্ত নেয় যে ২৩ এপ্রিলকে তাঁরা বিশ্ব বই এবং কপিরাইট দিবস বা আন্তর্জাতিক বই দিবস হিসাবে পালন করবে। এরপর থেকেই বিভিন্ন দেশে প্রতিবছর ২৩ এপ্রিল দিন টিকে বিশ্ব বই দিবস হিসাবে উদযাপন করা হয় ।এই বিশ্ব বই দিবস এর মূল ধারণাটি এসেছে ভ‍্যালেন্সীয় লেখক ভিসেন্ত ক্লাভেল আন্দেসের হাত ধরে। তিনি তাঁর প্রিয় লেখক মিগেল দে থের্ভান্তেস কে সম্মান জানানোর জন‍্য প্রথমে প্রিয় লেখকের জন্মদিনকে বেছে নিয়ে ৭অক্টোবর কে বিশ্ব বই দিবস হিসাবে পালন করেছিলেন পরবর্তীকালে তাঁর মৃত্যু দিন অর্থাৎ ২৩ এপ্রিল বিশ্ব বই দিবস হিসাবে উদযাপন হয়। বই পড়া,বই ছাপানো ও কপিরাইট সংরক্ষণের উদ্দেশ্য সচেতনতা বাড়ানোর জন্য এই দিবস বিশেষ ভাবে পালিত হয়। বই হল মানুষের প্রকৃত বন্ধু এবং অমূল্য সম্পদ স্বরূপ যা আজীবন আমাদের মনের গহীনে জ্ঞাণের প্রদীপ খানি প্রজ্বলিত করে রাখে। বই মানুষের অন্তরের বদ্ধ দ্বার খুলে দিয়ে নিঃসঙ্গতার করাল গ্রাস থেকে আমাদের মুক্তি দিতে পারে।শুধু কি তাই? এই পৃথিবী তার প্রতিটি কোনায় যে বিস্ময়ের পসরা সাজিয়ে রেখেছে বই পাঠ করলে সেই বিষ্ময়ের ভান্ডার আমাদের কাছে উন্মোচিত হয়। ইতিহাস, ভূগোল,রাজনীতি, অর্থনীতি, বিজ্ঞান, শিল্পকলা ও সাহিত্য ইত্যাদি সমস্ত কিছুর রহস্যের অন্দরে বই অবস্থান করে এবং কালের গতির বির্বতনের ধারাকে নীরব সাক্ষী রূপে বহন করে আমাদের কাছে উপস্থাপিত করে চলেছে যুগ যুগ ধরে।আমাদের দৈনন্দিন জীবনের ব্যস্ততা,হানাহানি দূর করে বই এনে দেয় এক অনাবিল প্রশান্তি।একবিংশ শতাব্দীর যুগে আমরা প্রযুক্তি জগতেই ব্যস্ত হয়ে পড়েছি তাই বই পড়া লোকের সংখ্যা বতর্মানে খুবই নগণ্য হয়ে পড়ছে।বই পড়ার প্রতি এই অনীহা আমাদের সামাজিক মূল্যবোধ অবক্ষয়ের কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে।তাই এই বিশ্ব বই দিবসে আমাদের শপথ করা উচিত বইয়ের মতো এই মূল‍্যবান অমৃত সুধার রস যেন আমারা সকলেই পান করি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

COVID পরিষেবা ও নিউ ব্যারাকপুর শহর

মহীতোষ গায়েন ও রাজীব দত্ত: Covid মহামারী তে বিধ্বস্ত সারা ভারতবর্ষ,সেখানে পশ্চিমবঙ্গের একটি ছোট শহর নিউ ব্যারাকপুর,সমগ্র নিউব্যারাকপুরবাসীকে এই ভয়ংকর অতিমারির হাত...

নিজে বাঁচুন, পরে পরিবারকে বাঁচান, তারপর সমাজকে তবেই নিজের দেশ বেঁচে থাকবে

বাপ্পা রায়, পুরুলিয়া :- করোনার প্রকোপ রুখতে এবং জনসচেতনতা গড়ে তুলতে পুরুলিয়ার আদ্রা ডিভিশনের অন্তর্গত বরাভূম রেল স্টেশনে বুধবার একটি সচেতনতা মূলক...

মুনিয়া দা আর নেই … রাজারহাটে শোকের ছায়া ….

রাজীব দত্ত, রাজারহাট : বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে রাজারহাট এলাকার বাসিন্দাদের কাছে , প্রতিদিনই মৃত্যুর খবর আক্রান্ত খবর এলাকাজুড়ে...

পূর্ব মেদনিপুর জেলা হাসপাতালের সদ্য প্রয়াত চিকিৎসকের দান করা অঙ্গে এবার সুস্থ হবেন অনেকে

হীরক মুখোপাধ্যায় (২৭ এপ্রিল '২১):- সমাজের মঙ্গলের জন্য চিকিৎসক পিতার মরনোত্তর অঙ্গদানে সম্মতি দিলেন চিকিৎসক পুত্র। চিকিৎসকের পুত্রের এহেন বদান্যতায় লাভবান হবেন...