08, Aug-2022 || 08:58 am
Home অন্যান্য প্রকৃতি সৃষ্ট আশ্চর্য সুন্দর স্থাপত্য হলো মার্বেল রক

প্রকৃতি সৃষ্ট আশ্চর্য সুন্দর স্থাপত্য হলো মার্বেল রক

সঞ্চিতা সিনহা,বাঁকুড়া: মনুষ্যসৃষ্ট এক অপূর্ব শ্বেতপাথরের নিদর্শন হল তাজমহল যেটি ভারতের উত্তর প্রদেশে আগ্রায় অবস্থিত। এটি আসলে একটি রাজকীয় সমাধি যেটি মুঘল সম্রাট শাহজাহান তার স্ত্রীর স্মৃতির উদ্দেশ্যে নিমার্ণ করেছিলেন। ১৬৩১ খ্রিষ্টাব্দে মুঘল সম্রাট শাহজাহান তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী আরজুমান্দ বানু বেগম যিনি মুমতাজ নামেও পরিচিত ছিলেন তাঁর মৃত্যুতে গভীর ভাবে শোকাহত হন। মুমতাজ মহল তাদের চতুর্দশ কন্যা সন্তান গৌহর বেগমের জন্ম দিতে গিয়ে মারা যান তখন মুঘল বাদশা শাহজাহান তাঁর প্রিয়তমার প্রতি ভালোবাসা ও তাঁর স্মৃতিকে চিরস্মরণীয় করে রাখার জন‍্য তাজমহল নিমার্ণ করেন। শাহজাহানই প্রথম শাসক যিনি সাদা দামি মার্বেল পাথরের ইমারত তৈরী করেন এর আগে মুঘল বাদশারা লাল পাথরের ইমারত বানাতেন। তাজমহল বিশ্বের একটি অপূর্ব সুন্দর স্মৃতিসৌধ ও মনোমুগ্ধকর ভালোবাসার নিদর্শন। আর এই শ্বেত পাথরের তৈরি মনুষ্যসৃষ্ট তাজমহল সকলের কাছেই একটি অতি মনোহর নিদর্শন।
অন‍্যদিকে আমাদের চোখের সামনে প্রকৃতি তার কতো উপাদান ছড়িয়ে ছিটিয়ে রেখেছে যা আমরা দেখেও দেখি না। কিন্তু সেইসব প্রাকৃতিক উপাদান সবাইকে মোহিত করে। আর এইরকমই একটি প্রকৃতি সৃষ্ট আশ্চর্য সুন্দর স্থাপত্য হলো মার্বেল রক। মার্বেল রক নর্মদা নদীর কোলে অর্ধ নিমজ্জিত একটি শ্বেত পাথরের পাহাড়। এটি নর্মদা নদীর ১০৭৭ কিলোমিটার (৬৬৯.২ মাইল) পথের এক অংশে গড়ে উঠেছিল। গুহাটি আকারে এতোই ছোট যে বাঁদর একদিক থেকে অন‍্যদিকে খুব সহজেই লাফিয়ে চলে যেতে পারে। সেইজন‍্যেই এর স্থানীয় নাম বান্দর কুডনি অর্থাৎ – বানরের লাফানোর জায়গা। সাদা মার্বেলগুলি প্রধানত ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ । আর এই জন্যেই গুহার গাত্রে খোদাই করতে সুবিধা হয়।
মধ্যপ্রদেশর জব্বলপুরে সব থেকে সুন্দর জায়গা হল ভেরাঘাট মার্বেল রক। এই মার্বেল রক শুধুমাত্র নামেই শ্বেতপাথরের। কিন্তু এখানের পাথর বিভিন্ন রকমের ও বিভিন্ন রঙের যেটি দেখলে মানুষের চোখ ধাঁধিয়ে যেতে বাধ‍্য হয়। এখানে হলদে, গোলাপি, নীলচে, বাদামি,সবুজ রঙের মেলবন্ধনে তৈরী হয়েছে পাথরের মার্বেল রক। আবার এই প্রাকৃতিক সৌন্দর্যতার সঙ্গে পাহাড়ের উপর শিবলিঙ্গ প্রতিষ্ঠা করে নর্মদা নদীর পবিত্রতাকে আরো বাড়িয়ে তোলা হয়েছে। স্থানীয় মানুষ এখানকার শিবলিঙ্গের খুব ভক্তি সহকারে পূজা করে থাকেন। প্রাকৃতিক সৃষ্ট এই পাহাড় দেখে কখনো মনে হয় দুর্গের দেওয়াল তো আবার কখনো মনে হয় উল্টে পড়ে থাকা গাড়ি।
মার্বেল রকের এই অপূর্ব শোভাকে কেন্দ্র করে অনেক সিনেমা তৈরী করা হয়েছে। এরমধ্যে “অশোকা” ও “মহেঞ্জদারো” দুটি উল্লেখযোগ্য সিনেমা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

নিজের বৌভাতের অনুষ্ঠানের পরের দিন গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা

প্রদীপ মজুমদার, নদীয়াঃ নদীয়ার নাকাশিপাড়া থানার গাছা এলাকায় নিজের বৌভাতের অনুষ্ঠানের পরের দিন গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করলেন এক যুবক।অসিত ঘোষ(৩২) নামে...

রহস্যজনকভাবে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা

মহঃ শাহজাহান আনসারী, বাঁকুড়া :- রহস্যজনকভাবে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটলো ছাতনার জিড়রা গ্রামে, মৃতার পরিবারের অভিযোগ...

রাজ্য সরকারের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ভাতারে বিজেপির পথসভা

মনোজ কুমার মালিক,ভাতাড়: চোরদের জেলে ভরো, মমতা গদি ছাড়ো । এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ভারতীয় জনতা যুবমোর্চার...

বিয়ের ছয় মাসের মাথাতেই বিষপান করে আত্মহত্যা এক কিশোরীর

প্রদীপ মজুমদার, নদীয়াঃ বাড়ি থেকে পালিয়ে প্রেম করে বিয়ে করে শেষ পর্যন্ত আর বেশি দিন সংসার করা হল না এক কিশোরীর। বিয়ের...