16, Oct-2021 || 03:10 pm
Home জেলা কাজের বিনিময়ে এখনো পুলিশ তার যোগ্য সম্মান পায় না

কাজের বিনিময়ে এখনো পুলিশ তার যোগ্য সম্মান পায় না

সঞ্চিতা সিনহা,বাঁকুড়া,(৭ মে ২০২০): সারা বিশ্ব সহ গোটা ভারতবর্ষ যখন কোরনার থাবায় আক্রান্ত, প্রতিদিন যখন মৃত্যুর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে, সেই সময় কর্তব্য পালনে অবিচল থেকে মানুষকে ঘরে থাকার অনুরোধ করে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ২৪ ঘন্টা জনস্বার্থ রক্ষার্থে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন পুলিশ কর্মীরা ।বর্তমানে চীনের গণ্ডি পেরিয়ে সারা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। যার দরুন দৈনন্দিন বেড়েই চলেছে মৃত্যুর সংখ্যা ও আক্রান্তের হার। আর তাই সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি ও জনসমাগম এড়ানোর জন্যই গত মার্চ মাস থেকে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে চালু করা হয়েছে লকডাউন। আর তখন থেকেই শুরু হয়েছে পুলিশকর্মীদের একটানা ডিউটি।
জনসাধারণকে সচেতন করতে মাইকিং করে এই বৈশ্বিক মহামারী সম্পর্কে অবহিত করা, রাস্তায় মাক্স বিলি করা, প্রবীণ নাগরিকদের বাড়িতে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া, মেডিক্যাল ত্রাণ পৌঁছে দেওয়া, গরিব নাগরিকদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিলি করা প্রভৃতির মাধ্যমে পুলিশকর্মীরা নিজেদের কর্তব্যের প্রতি অবিচল থাকছে। কিন্তু তাদেরও তো সংক্রমণের ভয় আছে। সর্বোপরি তাদেরও তো পরিবার আছে। কিন্তু তারা জানেনা তাদের পরিবারের সাথে আবার কবে তাদের দেখা হবে। পুলিশ প্রশাসন আজকে ব্যস্ত আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা করে দেশের জনগণকে সুরক্ষিত রাখার কাজে। তারা নিজেদেরকে নিয়োজিত করেছে বৃহত্তর জনগণের সেবার কাজে। মহামারীর সময় পুলিশকর্মীরা যতই সাহায্য করুক সব ভুলে গিয়ে আবার অনেক মানুষই এই সব পুলিশকর্মীদের ঘুষখোর বলবে। কিংবা পিছনে নিন্দা করবে অথবা জনতার রোষে থানা জ্বালাবে, পাথর ছুড়ে মারবে।
পুলিশকর্মীদেরও তো সুরক্ষিত থাকতে হবে। তাদেরও তো কোরনার বিরুদ্ধে একদিন জয়লাভ করতে হবে। ওদেরও তো বাড়িতে বউ গরম ভাত নিয়ে অপেক্ষা করছে কিংবা অসুস্থ মা তার মেয়েকে এক ঝলক দেখার জন্য বসে আছে। এইসব পুলিশকর্মীদের ছোট্ট ছোট্ট ছেলে মেয়েরা তাদের বাবা-মা কে কাছে পেতে কিংবা জড়িয়ে ধরে আদর খেতে চায়। তাই জনসাধারণের কাছে পুলিশ কর্মীরা বিশেষভাবে অনুরোধ জানাচ্ছেন অকারণে বাড়ির বাইরে বেরোবেন না। যদি একান্তই বাড়ির বাইরে যেতে হয় তাহলে অবশ্যই মাস্ক পরে বেরাবেন। নিজেদের মধ্যে দূরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা করুন,কোনভাবেই সাত জনের বেশি একত্রিত হবেন না। লকডাউন মেনে চলুন, করোনা মোকাবিলায় পুলিশ প্রশাসন ২৪ ঘন্টা আপনাদের পাশে আছে। কিন্তু জনসাধারণকেও মনে রাখতে হবে এই সাধারণ খাকি বা সাদা পোশাকের সুপারহিরোদেরও বাড়ি ফিরতে হবে মহামারীর শেষে। তাই পুলিশ কর্মীদের এই দুর্যোগের মাঝেও সুস্থ ও ভালো থাকতে হবে। থ্যাংক ইউ পুলিশ প্রশাসন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

শান্তিপুর বিধানসভার উপনির্বাচনের জয়ের আশায় দেবী দুর্গার কাছে প্রার্থনা বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার

প্রদীপ মজুমদার,নদীয়াঃশান্তিপুর বিধানসভার উপনির্বাচনের জয়ের আশায় দেবী দুর্গার কাছে প্রার্থনা রানাঘাট লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের। গত তিন বছর ধরে রানাঘাট...

শিশুর নাক খুবলে কামড়ে নিলো কুকুর

নিজস্ব সংবাদদাতা, হাবরাঃ বুধবার মহাষ্টমীর বিকেলবেলা বাদুড়িয়া থানার মোড় এলাকায় ২ বছরের এক শিশুর নাক খুবলে কমড়ে নিলো একটি কুকুর। রক্তাক্ত অবস্থায়...

বেড়াচাঁপা চৌমাথায় ফ্লেক্স ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা

নিজস্ব সংবাদদাতা, দেগঙ্গাঃ মঙ্গলবার গভীররাতে দেগঙ্গা ব্লকের অন্তর্গত বেড়াচাঁপা চৌমাথায় তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, মহিলা...

শ্রীভূমি দুর্গা পূজা প্যান্ডেলে বন্ধ করে দেওয়া হল লেজার শো

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলকাতাঃ তিনটি বিমানের পাইলট অভিযোগ করেছিলেন এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলে। এর পরই কলকাতা শ্রীভূমি দুর্গা পূজা প্যান্ডেলে বন্ধ করে দেওয়া হল...