11, May-2021 || 08:03 pm
Home জেলা ভারতীয় সেনাদিবসের ৭৩তম বর্ষপূর্তি

ভারতীয় সেনাদিবসের ৭৩তম বর্ষপূর্তি


সঞ্চিতা সিনহা, বাঁকুড়া (১৫ জানুয়ারি ২০২১): প্রতিবছরই ১৫ ই জানুয়ারি সারা ভারতবর্ষজুড়ে পালিত হয় সেনা দিবস। কারণ ১৯৪৯ সালে এই দিনেই প্রথম একজন ভারতীয় জেনারেল কে এম কারিয়াপ্পা ভারতীয় সেনাবাহিনীর দায়িত্বভার গ্রহণ করেছিলেন।
ব্রিটিশ শাসনমুক্ত অর্থাৎ স্বাধীন ভারতবর্ষের প্রথম সেনাপ্রধান ছিলেন ব্রিটিশ। ভারতের শেষ ব্রিটিশ কম‍্যান্ডার জেনারেল স্যার ফ্রান্সিস বাউচারকে সরিয়ে কারিয়াপ্পা তাঁর জায়গায় স্থলাভিষিক্ত হয়েছিলেন। সেই সময় কম্যান্ডার-ইন-চিফ জেনারেল কে এম কারিয়াপ্পা’র বয়স ছিল ৪৯ বছর। তিনি চার বছর সেনাপ্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন এবং ১৯৫৩ সালের ১৬ জানুয়ারি তিনি কর্মক্ষেত্র থেকে বিশ্রাম গ্রহণ করেন। কারিয়াপ্পা’র মুখেই প্রথম শোনা যায় ‘জয় হিন্দ’ স্লোগানটি। এই স্লোগানটি ভারতীয় সেনাদের বিজয় উদযাপন করতে ব্যবহার করা হয়। ফিল্ড মার্শাল কারিয়াপ্পা পঞ্চম তারকা প্রাপ্ত ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রথম অফিসার ছিলেন যিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ এবং ১৯৪৭ সালের ভারত-পাক যুদ্ধে দক্ষিণ সীমান্তে বীরত্বের পরিচয় দিয়ে প্রথম সারিতে লড়াই করেছিলেন। তাই তাঁকে সম্মান জানানোর জন্যই প্রতিবছর ১৫ জানুয়ারি সেনা দিবস হিসেবে উদযাপন করা হয়।
ভারতীয় সেনা দল নিঃস্বার্থভাবে দেশের সেবা করে চলেছে। দেশের প্রতি তাঁদের ভালোবাসা অতুলনীয়। তাই তাদের প্রতি সম্মান জ্ঞাপনের জন‍্য আজকেও সেনা দিবস উদযাপন করা হল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

COVID পরিষেবা ও নিউ ব্যারাকপুর শহর

মহীতোষ গায়েন ও রাজীব দত্ত: Covid মহামারী তে বিধ্বস্ত সারা ভারতবর্ষ,সেখানে পশ্চিমবঙ্গের একটি ছোট শহর নিউ ব্যারাকপুর,সমগ্র নিউব্যারাকপুরবাসীকে এই ভয়ংকর অতিমারির হাত...

নিজে বাঁচুন, পরে পরিবারকে বাঁচান, তারপর সমাজকে তবেই নিজের দেশ বেঁচে থাকবে

বাপ্পা রায়, পুরুলিয়া :- করোনার প্রকোপ রুখতে এবং জনসচেতনতা গড়ে তুলতে পুরুলিয়ার আদ্রা ডিভিশনের অন্তর্গত বরাভূম রেল স্টেশনে বুধবার একটি সচেতনতা মূলক...

মুনিয়া দা আর নেই … রাজারহাটে শোকের ছায়া ….

রাজীব দত্ত, রাজারহাট : বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে রাজারহাট এলাকার বাসিন্দাদের কাছে , প্রতিদিনই মৃত্যুর খবর আক্রান্ত খবর এলাকাজুড়ে...

পূর্ব মেদনিপুর জেলা হাসপাতালের সদ্য প্রয়াত চিকিৎসকের দান করা অঙ্গে এবার সুস্থ হবেন অনেকে

হীরক মুখোপাধ্যায় (২৭ এপ্রিল '২১):- সমাজের মঙ্গলের জন্য চিকিৎসক পিতার মরনোত্তর অঙ্গদানে সম্মতি দিলেন চিকিৎসক পুত্র। চিকিৎসকের পুত্রের এহেন বদান্যতায় লাভবান হবেন...