29, Oct-2020 || 01:11 pm
Home দেশ দেশের ছয় রাজ্যের ৫০০ গ্রামীণ উদ্যোগ এসভিইপি কর্মসূচির অধীনে এখন মাস্ক তৈরি...

দেশের ছয় রাজ্যের ৫০০ গ্রামীণ উদ্যোগ এসভিইপি কর্মসূচির অধীনে এখন মাস্ক তৈরি করছে : ডঃ রাজেশ গুপ্ত

হীরক মুখোপাধ্যায় (৪ মে ‘২০):- “দেশের ছয় রাজ্যের ৫০০ গ্রামীণ উদ্যোগ কেন্দ্রীয় সরকারের গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক-এর ‘আজীবীকা মিশন’-এর অধীন এক সাব স্কীম ‘স্টার্ট-আপ ভিলেজ এন্টারপ্রেনারসিপ প্রোগ্রাম’ (এসভিইপি) কর্মসূচির আওতায় এখন মাস্ক তৈরি করছে,” বলে জানিয়েছেন মন্ত্রকের এসভিইপি ইডিআইআই বিভাগের প্রজেক্ট হেড ডঃ রাজেশ গুপ্ত।

আজ প্রচারমাধ্যমের সাথে কথা বলতে গিয়ে ডঃ রাজেশ গুপ্ত জানান, “কেন্দ্রীয় সরকারের গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের অধীন ‘স্টার্ট-আপ ভিলেজ এন্টারপ্রেনারসিপ প্রোগ্রাম’টা সার্বিকভাবে পরিচালনা করে ‘এন্টারপ্রেনারসিপ ডেভলপমেন্ট ইন্সটিটিউট অব ইণ্ডিয়া’ (ইডিআইআই)।
বর্তমান পরিস্থিতিতে ‘ইডিআইআই’-এর প্রত্যক্ষ পরামর্শে দেশের ছয়টা রাজ্য (পশ্চিমবঙ্গ, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ ও হরিয়ানা)-র ৫০০ গ্রামীণ উদ্যোগ প্রত্যেকে এই মুহুর্তে গড়ে দৈনিক ২,৫০০ মাস্ক উৎপাদন করছে।
‘এসভিইপি’-র আওতায় ৫০০ গ্রামীণ উদ্যোগ এখনও পর্যন্ত ৩ লাখ ৫০ হাজার মাস্ক তৈরি করে বিক্রি করেছে।
দেশের অন্য ৫ টা রাজ্যের সাথে তালে তাল মিলিয়ে পশ্চিমবঙ্গের দিনহাটা, পাথরপ্রতিমা এবং মানিকচক ব্লকের ৩৮ টা গ্রামীণ উদ্যোগ এখন এককভাবে দিনে ৬০০ মাস্ক তৈরি করে সরবরাহ করছে। এই হিসেবে এখনও পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে ৪৯ হাজার মাস্ক তৈরি করে বিক্রি করা হয়েছে।”

গ্রামীণ উদ্যোগগুলোর এই ভূমিকায় সমাজের তৃণমূল স্তরে কাজ করা স্বাস্থ্যকর্মী, চিকিৎসকবৃন্দ, সরকারী কর্মী,পুলিশ, সাফাইকর্মী, সাংবাদিক, স্বেচ্ছাসেবীরা উপকৃত হয়েছেন।

স্থানীয় প্রশাসনিক ও স্বয়াত্বশাসিত সংস্থাগুলো মাস্ক তৈরীর প্রয়োজনীয় কাঁচামাল যেমন উদ্যোগপতিদের সরবরাহ করছে, তেমনই সব রকম গুণমান বজায় রেখে যাতে কাজ হয় সে দিকেও নজর রাখছে। উদ্যোগপতি ও প্রশাসনিক স্তরের নজরদারিতে মাস্কগুলো পরিচ্ছন্ন পরিবেশে তৈরি করা সম্ভব হচ্ছে।
এর ফলে একদিকে যেমন মাস্কের অপ্রতুলতার সংকট অনেকটা কাটানো সম্ভব হয়েছে, তেমনই অন্যদিকে ক্ষুদ্র গ্রামীণ উদ্যোগগুলো নিয়মিত কিছু রোজগারের সুযোগও তৈরি করতে পেরেছে।

প্রসঙ্গতঃ বলে রাখা ভালো, ‘নভেল কোরোনা ভাইরাস’ সম্পর্কিত রোগ ‘কোভিড ১৯’-এর পরিপ্রেক্ষিতে এই মুহূর্তে দেশে লকডাউন চলছে।
লকডাউন-এর অভিঘাতে নিয়মিত রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দেশের প্রান্তিক উদ্যোগপতিরা দিশাহারা হয়ে পড়েছিলেন।
এই দূরাবস্থা কাটাতে এগিয়ে আসে কেন্দ্রীয় সরকারের গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের অধীন ‘ইডিআইআই’।
পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে ‘ইডিআইআই’ দেশের গ্রামীণ উদ্যোগপতিদের অতি প্রয়োজনীয় ফেস মাস্ক তৈরীর উপদেশ দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল-এর জন্মতিথি থেকে আহমেদাবাদ ও কেভাডিয়া-র মধ্যে চালু হচ্ছে সিপ্লেন পরিষেবা

হীরক মুখোপাধ্যায় (২৮ অক্টোবর '২০):- আগামী ৩১ অক্টোবর সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল-এর জন্মতিথিকে স্মরণে রেখে আহমেদাবাদ-এর 'সবরমতী নদী' থেকে গুজরাতে অবস্থিত কেভাডিয়া-র 'স্ট্যাচু...

প্রতিবাদ দিবস পালন করতে গিয়ে তৃণমূলী দুষ্কৃতীদের আক্রমণের শিকার ভারতীয় মজদুর সংঘ-র প্রদেশ নেতৃত্ব

হীরক মুখোপাধ্যায় (২৮ অক্টোবর '২০):- কেন্দ্রীয় সরকারের শ্রমিক বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে আজ পূর্ব মেদিনীপুর জেলার নন্দীগ্রাম অঞ্চলে তৃণমূল কংগ্রেস...

অবস্থান বিক্ষোভ শ্রমিকদের

মলয় সিংহ, বাঁকুড়া :একাধিক দাবি দাওয়া নিয়ে বাঁকুড়ার বড়জোড়া ব্লকের হাটআসুড়িয়ায় কালিমাতা ভেপার প্রাইভেট লিমিটেড নামে রেলের যন্ত্রাংশ তৈরির কারখানার সামনে অবস্থান...

নারীর ক্ষমতায়ন:

অর্পিতা সিনহা,বাঁকুড়া(২৭অক্টোবর): বিংশ শতাব্দীর বিজ্ঞানের জয়যাত্রা পেরিয়ে একবিংশ শতাব্দীতে জ্ঞান বিজ্ঞানের আলোকে আজ আমরা অনেকটাই পরিপূর্ণতা লাভ করেছি। সভ্যতার যে অগ্রগতি ও...