05, Dec-2020 || 09:09 pm
Home জেলা কালী পুজোর দিন কেন অলক্ষ্মী পুজো করা হয়

কালী পুজোর দিন কেন অলক্ষ্মী পুজো করা হয়

সঞ্চিতা সিনহা,বাঁকুড়া(১৩ নভেম্বর ২০২০ ) : আলোর রোশনাইয়ের মধ্যে দিয়ে মনের সমস্ত কালিমা দূর করার উৎসব হল কালীপুজো। আর সেজন্যই এই বিশেষ দিনটিতে অলক্ষ্মী পুজো করা হয়। মনে করা হয় দেবী লক্ষ্মী যদি চঞ্চল হয়ে যান তাহলে সেখানে অলক্ষ্মীর নিবাস গড়ে উঠবে। কারণ দেবী লক্ষ্মীর আশীর্বাদের দরুণ মানুষের জীবন ধন, ধান‍্য ও সুখ শান্তিতে সমৃদ্ধ হয়। কিন্তু মানুষের ধন বৃদ্ধি পাবার সঙ্গে সঙ্গেই তার অহংকার বৃদ্ধি পায়। তাই কালীপুজোর দিন অলক্ষ্মী পুজোর মাধ্যমে মানুষের মনের সমস্ত কালিমাকে দূরীভূত করে ধনসম্পদের দেবী লক্ষ্মীকে গৃহে প্রতিষ্ঠিত করা হয়।
কলীপুজোর দিন সমস্ত ঘর পরিস্কার করে মা লক্ষ্মীর চরণযুগল অঙ্কিত করনের মাধ্যমে আল্পনা দেওয়া হয় এবং সমস্ত ঘরে প্রদীপ প্রজ্বলিত করা হয়। প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী এরমধ‍্যে দিয়েই অলক্ষ্মী বিদায় নেবে এবং ধন, ধান্য ও সৌভাগ্যের দেবী লক্ষ্মীর আগমন ঘটবে।
তবে আসল কথা হল লক্ষ্মী ও অলক্ষ্মী মানুষেরই মনের দুই ভিন্ন রূপ৷ মানুষ এক রূপে যেমন শান্ত, ভদ্র ও পরোপকারী ঠিক তেমনি অন‍্য রূপে সে উগ্র ,অভদ্র ও অহংকারী। মানুষের এই অহংকারী রূপ যাতে মানুষের ভালো গুণাবলীকে বিনষ্ট না করে দেয় এবং আমাদের মনুষ্যত্বকে গ্রাস না করে নেয় তার জন্যই অলক্ষ্মী পুজোর প্রচলন ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

পুরুলিয়া জেলার বিভিন্ন বিধানসভায় অনুষ্ঠিত হলো বিজেপির বাইক রেলী

বাপ্পা রায়, পুরুলিয়া, ০৪ ডিসেম্বর:- ভারতীয় জনতা যুব মোর্চার পক্ষ থেকে শুক্রবার পুরুলিয়া জেলার বিভিন্ন বিধানসভায় অনুষ্ঠিত হলো বাইক রেলী।এদিন পুরুলিয়া জেলার...

জীবন যুদ্ধ শেষ করে পঞ্চভূতে বিলীন হলেন বাবুরাম মান্ডী

মলয় সিংহ,বাঁকুড়া : না, আর শেষ রক্ষা হলো না জীবন যুদ্ধে হার মানতেই হলো গঙ্গাজলঘাঁটি থানার কতব্যরত সাব-ইন্সপেক্টর বাবুরাম মান্ডীকে । জীবন...

পরপর দু দিন হাসনাবাদে দুই নাবালিকার বিয়ে রুখল প্রশাসন

সৌরভ দাশ,হাসনাবাদ: পরিবারের অবস্থা স্বচ্ছল নয়,ফলত পরিবারের পক্ষ থেকে তাড়াতাড়ি বিয়ে দেওয়ার আয়োজন হয়েছিলো দশম শ্রেণীর পাঠরতা এক নাবালিকার।তবে বিয়ে নয় পড়াশুনাতেই...

সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন দঃ ২৪ পরগনার জেলাশাসক : রামকৃষ্ণ সাহা

হীরক মুখোপাধ্যায় (৪ ডিসেম্বর '২০):- টানা ১৫ বছর অস্থায়ী কর্মী রূপে কাজ করার পরেও সরকার স্থায়ী কর্মচারী রূপে স্বীকৃতি না পাওয়ায় আজ...