21, Oct-2020 || 11:00 am
Home জেলা কমেছে বাজেট,স্বাস্থ্যবিধি মেনেই চলছে টাকীর বিভিন্ন বারোয়ারি দুর্গাপূজা র শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি।

কমেছে বাজেট,স্বাস্থ্যবিধি মেনেই চলছে টাকীর বিভিন্ন বারোয়ারি দুর্গাপূজা র শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি।

সৌরভ দাশ,টাকীঃ জমিদার বাড়ির পাশাপাশি বিভিন্ন বারোয়ারি পূজা কমিটি গুলির মন্ডপ ও প্রতিমা প্রতিবার ই নজর কাড়ে টাকীতে।মন্ডপ, প্রতিমা থেকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ক্লাব গুলির বন্ধুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতা তারিয়ে উপভোগ করেন টাকী ও পাশ্ববর্তী এলাকার মানুষ।এ বছর পূজোর বাঁকি আর মাত্র ছয় দিন। শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি চলছে টাকীর বিভিন্ন বারোয়ারি পূজো কমিটি গুলির মধ্যে। অন্যবারের তুলনায় বহরে ছোট হওয়ার পাশাপাশি দর্শনার্থীদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে দফায় দফায় পরিকল্পনা সভা করছে পূজা কমিটি গুলি।
টাকীর অন্যতম প্রাচীন সার্বজনীন দুর্গোৎসব থুবা ব্যায়াম সমিতির দুর্গোৎসব।প্রতি বছর ই ষষ্ঠী র জমকালো অনুষ্ঠান থেকে দশমীর সিঁদুর খেলা ক্লাব প্রান্গন কোলাহলে মুখোরিত থাকে,পূজার কদিন সন্ধ্যায় টাকীর প্রচুর মানুষ সমবেত হন এই ক্লাব প্রান্গনে, জমে ওঠে দেদার আড্ডা।ফি বৎসর ব্যায়াম সমিতি হয়ে ওঠে বন্ধুত্ব আত্মীয়তার মিলন ক্ষেত্র, তবে এবছর পরিস্থিতি বদলেছে অনেকটাই,বহরে ছোট হয়েছে ব্যায়াম সমিতির পূজো সরকারী বিধি নিষেধ মেনেই চলছে পূজার শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি।পূজোর আগে থেকেই ব্যানার দিয়ে চলছে সচেতনতা মূলক প্রচার।
এবছর ব্যায়াম সমিতির পূজো ৮৯ তম বর্ষে পদার্পন করলো।স্বাধীনতা উত্তর কালে জমিদার দের পুজোর পাশাপাশি টাকী তে প্রথম বারোয়ারি দুর্গাপূজার প্রচলন করে থুবা র এই ক্লাব।স্বাধীনতা সংগ্রামে ও এই ক্লাবের সদস্য দের উল্লেখ যোগ্য ভূমিকা টাকী থুবা বাসীকে গর্বিত করে আজও।পরবর্তী সময়ে খেলাধুলা, সমাজসেবা মূলক কাজ, সংস্কৃতি চর্চার অন্যতম পীঠস্থান হিসাবে মহকুমা তথা জেলা স্তরে পরিচিতি লাভ করেছে টাকীর এই ক্লাব।ক্লাবের সম্পাদক কমল ঘোষ জানান এ বছর তাদের পূজা অন্যবারের তুলনায় বহরে ছোট হলেও,প্রাচীন রীতি মেনেই হবে পূজার কাজ।দর্শনার্থীদের জন্য স্যানিটাইজেশানের ব্যবস্থা থাকছে,থাকছে মাস্ক প্রদানের ব্যবস্থা।পূজা দেবেন যারা তাদের গোটা ফলে পূজা দেওয়ার আবেদন করা হচ্ছে,তার কথায় প্রতিবার এই ক্লাবে সহস্রাধিক মানুষ অঞ্জলি দেন,এ বছর বেশ কয়েকটি দফায় অঞ্জলি দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।প্রতিবছর প্রতিসন্ধ্যায় প্রায় পাঁচশ থেকে ছয় শত মানুষ ক্লাব প্রান্গনে বসে থাকেন তবে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে এবার তারা দর্শকাসন কমাচ্ছেন বলে জানান ক্লাব সম্পাদক।ভিঁড় সামলাতে প্রবেশ ও বাহির পথের পাশাপাশি আরো একটি বিকল্প পথ ও ভাবা রয়েছে, থাকছে প্রতিদিন স্যানিটাইজেশানের ব্যবস্থা,দর্শনার্থীদের কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে তার জন্য আলাদা ঘরের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে বলে জানান তিনি।
টাকী ইছামতী নদীর পাড়ের জমিদার বাড়ি যা টাকীর দক্ষিন বাড়ি নামে পরিচিত, সেই দালানের দুর্গাপূজা কুড়ি বছর আগে পর্যন্তও জমিদারদের বংশধরেরাই করতেন,তবে তার পর থেকে এই পূজার দায়িত্ব ভার গ্রহণ করে স্থানীয় অর্কিড ক্লাবের সদস্য রা।প্রতিবছর জমিদারদের দুর্গাদালানেই পুরানো রীতি মেনেই পূজিত হন দেবী দুর্গা।অষ্টমী তিথিতে এলাকাবাসী কে ভোগ নিবেদন করা হয় ক্লাবের পক্ষ থেকে।করোনা আবহে এবারের ভোগ বিতরন সথগিত করা হয়েছে ক্লাবের তরফে, সম্পুর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনেই শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি চলছে অর্কিড ক্লাবে, জানান ক্লাবের সদস্য অসীম চৌধুরী।
টাকী অন্যতম প্রাচীন ক্লাব মিলন সমিতিতেও এবারের পুজার বাজেট অন্যবারের তুলনায় কম,অন্যান্ন বছর আলোক সজ্জাই হয়ে ওঠে মিলন সমিতির আকর্ষন, এবছরে আলোক সজ্জার ব্যবস্থা থাকলেও অন্যবারের তুলনায় বহরে অনেক কম, যাবতীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনেই একাশি তম বর্ষের পূজা অর্চনা হবে এই ক্লাবে জানান ক্লাবের পুজা কমিটির সম্পাদক তথা টাকীর সদ্য প্রাক্তন পৌরপ্রধান সোমনাথ মুখোপাধ্যায়। পানীয় জলের ব্যবস্থা থেকে স্যানিটাইজার, মাস্ক, সহ পর্যাপ্ত ভলেন্টিয়ার রাখা হচ্ছে ক্লাবের তরফে।
টাকী ফায়ার ইউনিট এর দুর্গোৎসব এবছর সত্তর বছরে পদার্পন করলো।ক্লাবের অন্যতম কর্তা সুব্রত মুখার্জী জানান করোনা আবহে এ বছরে তাদের প্যান্ডেলের চাকচিক্য না থাকলেও তাদের প্রতিমা নজর কাড়বে সবার।পূজা হবে রীতি ও স্বাস্থ্যবিধি মেনেই।
টাকী দত্তপাড়া বিবেকানন্দ স্পোর্টিং ক্লাবের দুর্গাপূজা এবছর বহরে অনেক টাই ছোট,প্রতিবার বিভিন্ন থিম কে ফুটিয়ে তোলা এই পূজা কমিটি এবার সমস্ত রকম অনুষ্ঠান বাতিল করেছে,থাকছে না উদ্বোধনী অনুষ্ঠানও।ক্লাব সম্পাদক বিকাশ ঘোষ জানান স্বাস্থ্য বিধি মেনে পূজার আয়োজন চলছে,থাকছে স্যানিটাইজার ও মাস্কের ব্যবস্থা, অন্য বারের ভোগবিতরনের রীতি কে মেনে এবারে ভোগের ব্যবস্থা হবে, তবে তাও সম্পুর্ন স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবং শুধুমাত্র পল্লীবাসী দের বাড়ি বাড়ি তা পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।
টাকী অগ্রদূত ক্লাবের চতুর্থ বর্ষের পূজা ও সম্পুর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সম্পন্ন হবে,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বাতিল করা হলেও থাকছে দুঃস্থ দের বস্ত্র বিতরন, তবে সে ক্ষেত্রেও কয়েকটি পর্যায়ে নির্দিষ্ট দিনে স্বল্প সংখ্যক মানুষ কে বস্ত্র তুলে দেওয়া হবে।সম্পাদক অভিষেক ঘোষ জানান অন্যবার প্রায় আড়াই লক্ষ টাকার বাজেট থাকে, করোনা ও লকডাউনের জোড়া প্রভাবে এবারে তা আশি হাজারে নামিয়ে আানা হয়েছে।
এছাড়াও টাকী মহাকালী নাট্যসমাজ,টাকী যুবগোষ্ঠী, ইউ.সি ক্লাব সহ বিভিন্ন ক্লাবেও বিধি নিষেধ মেনেই চলছে পূজা প্রস্তুতির কাজ।বেশ কিছু ক্লাব পাড়ায় পাড়ায় চাঁদা তোলা থেকেও বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবছর,কোনো কোনো পূজা কমিটি তাদের বাজেটের বেশ কিছু অংশ সাধারন মানুষের সাহা্যার্থে ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, চলছে সচেতনতা মূলক প্রচার।সব মিলিয়ে এ বছরে পূজা যে অন্যবারের থেকে আলাদা হতে চলছে তা বলাই বাহুল্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

বাঁকুড়া পৌরসভার প্রশাসক বোর্ডের সদস্য দিলীপ আগরওয়াল স্থানীয় ধর্মশালায় বস্ত্র বিতরণ

মোহাম্মাদ শাহজাহান আনসারী,বাঁকুড়া:-আর দু দিন পর এই রাজ্যের সবচেয়ে বড় উৎসব অর্থাৎ দুর্গাপুজো শুরু হবে । কিন্তু এই করোনা আবহে বহু মানুষ...

আদালতের রায়কে উপেক্ষা করে সদলবলে কোলকাতায় পুজো উদ্বোধন করলেন স্মিতা বক্সী

হীরক মুখোপাধ্যায় (২০ অক্টোবর '২০):- কোলকাতা উচ্চ ন্যায়ালয়ের আদেশকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়ে আজ পুজোর উদ্বোধন সারল 'ইয়ুথ অ্যাসোসিয়েশন অব মোহম্মদ আলী...

পশ্চিমবঙ্গের জন্য ৩ রঙের রিচ ক্রিম আনল গোদরেজ এক্সপার্ট

হীরক মুখোপাধ্যায় (২০ অক্টোবর '২০):- পুজো উপলক্ষ্যে বিশেষকরে পশ্চিমবঙ্গের জন্য পৃথক ৩ টে রঙের 'রিচ ক্রিম' আনল 'গোদরেজ এক্সপার্ট' ।

তৃণমূল কংগ্রেস মহিলা শাখার পাশাপাশি শুরু করলো বঙ্গজননী সংগঠন

প্রদীপ মজুমদার, নদীয়াঃ তৃণমূলের মহিলা শাখার ওপর আর ভরসা না থাকায় তৃণমূল কংগ্রেস মহিলা শাখার পাশাপাশি শুরু করলো বঙ্গজননী সংগঠন।এই সংগঠনের কাজ...