34 C
Kolkata
Friday, June 14, 2024
বিশ্ব বাংলা নিউজকলকাতাইচ্ছে থাকলে সবই সম্ভব, ফের মানবিক উদ্যোগের নজির গড়লো নিউ বারাকপুর থানার পুলিশ

ইচ্ছে থাকলে সবই সম্ভব, ফের মানবিক উদ্যোগের নজির গড়লো নিউ বারাকপুর থানার পুলিশ

নিজস্ব প্রতিনিধি, নিউ ব্যারাকপুর: ফের মানবিক উদ্যোগের নজির নিউ বারাকপুর থানার পুলিশ : শনিবার রাতে নিউ বারাকপুর থানার পেট্রোলিং অফিসার পার্থ দাস একজন বৃদ্ধকে অচৈতন্য অবস্থায় পুরসভার ১৯ নং ওয়ার্ডের বটতলা বাশঁতলা মেড প্লাস ওষুধের দোকানের সামনে পড়ে থাকতে দেখেন।তিনি প্রাথমিক ভাবে বৃদ্ধ কে চোখে মুখে জল দিয়ে ঞ্জান ফেরানোর চেষ্টা করেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারেন তিনি আগে উত্তর দমদম বিশরপাড়া সপ্তগ্রাম এলাকায় ভাড়া থাকতেন। পরে তার স্ত্রী ২০০৭ সালে মারা যাবার পর তিনি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন।তিনি তার একমাত্র মেয়ের নাম বলেন এবং সেই নামের সূত্র ধরে পুলিশ মেয়ে কে খুজে বার করেন। জানা গিয়েছে মেয়ে টি একটি ভাড়া বাড়িতে আশ্রিতা পরিচারিকা হিসেবে থাকেন। এর পর শুরু হয় অন্য নাটক।পুরসভার ২০ নং ওয়ার্ডে বৃদ্ধ মেয়ে কে নিয়ে যে বাড়িতে থাকেন সেই বাড়ির মালিক বৃদ্ধ কে প্রবেশের অনুমতি দেননি।তৎক্ষণাৎ রাতেই স্থানীয় কিছু ছেলে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন ।কিন্তু তারা এই ক্লাব থেকে ঐ ক্লাবে শুধু পাঠাতে থাকেন যাতে শুধুমাত্র রাতের গভীরতা বাড়ে। কর্মফলে শূন্যতে দাড়ায়।সেই সময় মাঝরাতে উপায়ন্ত না দেখে থানার প্রবেশনার অফিসার বড় বাবুকে ঘটনাটি জানান। বড় বাবু মানবিকতা খাতিরে অসহায় বৃদ্ধ এবং তার মেয়ের কথা চিন্তা করে মধ্য রাতে পুরসভার ডাঃ বি সি রায় জেনারেল হাসপাতাল ও মাতৃসদনে বৃদ্ধর প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন এবং রাতেই মেয়ে সহ বৃদ্ধ কে থানায় নিয়ে আসা হয়। রবিবার সকালে বৃদ্ধ কে চা বিস্কিট রুটি তরকারি প্রাতরাশ ব্যবস্থা করা হয়। দুপুরে চুল দাড়ি কাটিয়ে স্নান করান। নতুন জামা কাপড় পরিয়ে মধ্যাহ্ন ভোজ করান হয় ।পুরসভার চেয়ারম্যান প্রবীর সাহার সাথে আলোচনা করে বৃদ্ধ কে রবিবার বিকেলে পুরসভার স্নেহের বন্ধনে আবাসিকদের হোমে থাকার সুবন্দোবস্ত করা হয়। বড় বাবুর সাথে সহযোগিতা করেন থানার এসআই পার্থ দাস, থানার লেডি এএসআই চুমকি সরকার, এসআই সুজয় বরুয়া কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করেন।পুলিশ জানিয়েছে অসহায় বৃদ্ধর নাম প্রনব ঘোষ (৫৮)।মেয়ের নাম মৌমিতা ঘোষ। পুলিশের মানবিক উদ্যোগকে কুর্নিশ জানিয়েছেন তার মেয়ে।বলেন থানার বড় বাবুর কাছে কৃতজ্ঞ। উনি আমার কাছে ভগবানের মতো হয়ে গেলেন। বাবাকে খুজে দিয়েছেন এত সুন্দর ভালো জায়গায় রাখলেন সত্যিই পুলিশের কাছে খুব কৃতজ্ঞ। আশা করিনি। জানতাম না। নিশ্চিত ভালো জায়গা। মনে শান্তি পেয়েছি। পুলিশ বন্ধুর মতো। যে ভাবে পাশে দাঁড়িয়েছে বলার ভাষা নেই।বৃদ্ধ নতুন জামা কাপড় পরে থানার ওসি র উদ্দেশ্য বলেন ধন্যবাদ দেওয়ার ভাষা নেই। ভগবান তুল্য। ভগবানের কাছে প্রার্থনা করি হাজার বছর ওনার পরিবারের লোকজন সুখে শান্তিতে ভালো থাকবেন।

বাংলায় সবার আগে পড়ুন ব্রেকিং নিউজ। থাকছে দৈনিক টাটকা খবর, খবরের লাইভ আপডেট। সবচেয়ে ভরসাযোগ্য বাংলা খবর পড়ুন বিশ্ব বাংলা নিউজের ওয়েবসাইট এ।

Related Articles

Stay Connected

0FansLike
3,912FollowersFollow
21,800SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles