Categories: সু-স্বাস্থ্য

শুভ কাজে হাঁচিকে কেন অশুভ বলে মনে করা হয়

অর্পিতা সিনহা, বাঁকুড়া( ২৫নভেম্বর): আজ একবিংশ শতাব্দীতে আমরা বিজ্ঞানের হাত ধরে উন্নতির শীর্ষ চূড়ায় পৌঁছে গেছি। কিন্তু এই অভাবনীয় বৈজ্ঞানিক উন্নতির পাশাপাশি অজস্র কুসংস্কার আজও বহু মানুষের মনের কোণে দানা বেঁধে রয়েছে। এমনকি এই সমাজে অনেক সময় একই ব্যক্তির মধ্যেও বিজ্ঞান ও কুসংস্কারের সহাবস্থানের প্রাবল্য দেখলে অবাক হয়ে যেতে হয়। অন্ধবিশ্বাস, ভ্রান্ত ধারণা ও অপ্রচলিত লোকাচারের বশবর্তী হয়ে বহু মানুষ এমন অনেক আচরণ করেন যা একবারে ভিত্তি হীন। যেমন শুভ কাজে যাওয়ার আগে হাঁচি বা টিকটিকির ডাক শুনলে অনেকে যাত্রাকে অশুভ বলে মনে করে থাকেন।

পৃথিবীতে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর যে জীবনে একবারও হাঁচেনি।বিভিন্ন রকম হাঁচির সাথে আমরা সবাই কম বেশি পরিচিত, আর তা আমাদের জীবনের সাথে নানাভাবে জড়িত। এই হাঁচি নিয়ে নানা কুসংস্কার প্রচলিত আছে।বলা হয় যে যাত্রাকালে হাঁচি অত্যন্ত অশুভ।হাঁচি আসার মূল কারণ হলো আমাদের নাকের ভিতরে সুড়সুড়ি অনুভূতি হওয়া।নাক দিয়ে নিঃশ্বাস নেবার সময় যদি কোন দূষিত পদার্থের কণা নাকে ঢুকে পড়ে তখন সিলিয়া নামে এক ক্ষুদ্র অঙ্গ মস্তিষ্কে সংকেত পৌঁছে দেয়।মস্তিষ্ক তখন নাকের সাইনাসের পেশীগুলোকে নির্দেশ দেয় এই দূষিত পদার্থগুলো জোর করে বের করে এগুলো পরিষ্কার করতে। মূলত অ্যালার্জি সৃষ্টিকারী ধূলিকণা নাকে প্রবেশ করলে বা সর্দি জাতীয় কোন ভাইরাস দ্বারা শরীর আক্রান্ত হলে হাঁচি হয়।

প্রাচীন সংস্কৃতিতে এই বিশ্বাস প্রচলিত আছে যে,হাঁচি মানুষের দেহ থেকে দুষ্ট আত্মা বের করে দেয় এবং এই দুষ্ট আত্মা এক ব্যক্তির শরীর থেকে তার আশেপাশে থাকা অন্য ব্যক্তির শরীরে হাঁচির মাধ্যমে প্রবেশ করে।তাই হাঁচি দিলে বলা হয় “ঈশ্বর মঙ্গল করুন” বা “গড ব্লেস ইউ “।তবে এই নিয়েও উপকথা প্রচলিত আছে। ইউরোপে যখন প্লেগ মহামারী আকার ধারণ করেছিল এবং লাখ লাখ মানুষ মারা যাচ্ছিল তখন পোপ সপ্তম গ্রেগরি প্রতি হাঁচির পর “ঈশ্বর মঙ্গল করুক” এই আশীর্বাদ সূচক কথাটি প্রচলন করেন।এর পেছনে কারণ হলো প্লেগ রোগের অন্যতম লক্ষণ গুলোর মধ্যে ছিল হাঁচি বা কাশি।এই কথা বললে হয়তো রোগী মারা নাও যেতে পারে এরকম ধারণা প্রচলিত ছিল।

বাইরে বা কোন শুভ কাজে বেরোনোর সময় হাঁচলে বলা হয় যে কাজটি হয়তো অসম্পূর্ণ থাকবে বা অশুভ হবে।হাঁচিকে উপেক্ষা করে বাইরে বেরালে হয়তো কোনো দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে,তাই বলা হয় একটু বসে যেতে কিন্তু এটা একটা কুসংস্কার ছাড়া কিছুই নয়।হাঁচি দিলে মনে করা হয় হৃৎপিণ্ডের কম্পনের মাত্রার তারতম্য হয় তাই কিছু ক্ষণ অপেক্ষা করে যেতে বলা হয়।আবার
শুধু মানুষ নয় জীবজন্তুর হাঁচিকে নিয়েও নানান কুসংস্কার প্রচলিত আছে। বাইরে বেরিয়ে যদি গরুর হাঁচির শব্দ শোনা যায় তাহলে মনে করা হয় যে কাজে বেরিয়েছে সেই কাজ সুসম্পন্ন হবে।কিন্তু যদি কুকুরের হাঁচি শোনা যায় তাহলে মনে করা হয় কোন দুর্ঘটনা বা বিপদ ঘটবে।আবার হাতি হাঁচলে নাকি রাজ্যলাভের সম্ভাবনা থাকে।

হাঁচি নিয়ে কুসংস্কার এর শেষ নেই,অনেক মানুষই কুসংস্কারের উপর ভিত্তি করে হাঁচি চাপার চেষ্টা করে থাকেন। কিন্তু হাঁচি চাপলে মৃত্যুর সম্ভাবনা থেকে যায়।এই হাঁচির বেগ ঘন্টায় ১০০কিলোমিটারের মতো এবং হাঁচি ১০০০০০ জীবাণু বহন করে। আরেকটা মজার কথা হলো ঘুমন্ত অবস্থায় হাঁচি দেওয়া কখনোই সম্ভব নয়।চিকিৎসা বিজ্ঞানে হাঁচি একটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া।তাই হাঁচিকে কুসংস্কার বলে মনে করা ঠিক নয়।

Share

Recent Posts

ভাঙা বাড়িতে পরিত্যক্ত অবস্থায় ,উদ্ধার এক সদ্যজাত শিশু

সৌগত মন্ডল(বীরভূম): শিশুটাকে সালবাদরা সুলাঙ্গা ভোট ভুটকুপাড়া পাওয়া গেছে আজ সকাল ৬ টায়। সিভিক পুলিশরা খবর দেয় আশা কর্মী কে,… Read More

12 hours ago

লকডাউনে অসহায় ব্যক্তিদের পাশে কাষ্ঠগড়া স্পোর্টস এন্ড কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা

সৌগত মন্ডল (বীরভূম ): সারা দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। রাস্তা ঘাট থেকে শুরু করে যানবাহন দোকান সমস্ত কিছুই বন্ধ । একশ্রেণীর… Read More

1 day ago

নদিয়ায় কোয়ারেন্টাইনে থাকা যুবকের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

স্নেহাশীষ মুখার্জি, নদীয়া(২৯ মার্চ) : করোনা আবহে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা এক যুবকের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য নদিয়ার… Read More

2 days ago

উলুবেড়িয়া উপ- সংশোধনাগারে বন্দীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ বন্ধ

অভিজিৎ হাজরা, উলুবেড়িয়া: উলুবেড়িয়া উপ-সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ করোনা ভাইরাস এর সতর্কতা অবলম্বনে বন্দীদের সঙ্গে বাড়ির লোকেদের দেখা করা নিষিদ্ধ করেছে। দেশে… Read More

2 days ago

এক সামাজিক মাধ্যম দাবী করছে বাজারে দেদার বিক্রি হচ্ছে ব্যবহৃত মাস্ক

হীরক মুখোপাধ্যায় (২২ মার্চ '২০):- যাঁরা এই মুহুর্তে 'কোরোনা ভাইরাস'-এর সংক্রমণ ঠেকাতে একবারের ব্যবহার উপযোগী সার্জিক্যাল মাস্ক বাজারের অনামী দোকান… Read More

1 week ago

বোমা বাঁধতে গিয়ে বোমের আঘাতে জখম এক

স্নেহাশীষ মুখার্জি, নদীয়া(২১ মার্চ ):বোমা বাঁধতে গিয়ে বোমের আঘাতে গুরুতর জখম এক তৃণমূল কর্মী। আশঙ্কাজনক অবস্থায় কলকাতা নীলরতন হাসপাতালে ভর্তি।… Read More

1 week ago