মুখ্যমন্ত্রীর আইনকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে হেলমেটহীন অবস্থায় বাইক চড়লেন সাংসদ সৌগত রায়

কলকাতা

হীরক মুখোপাধ্যায় (১ মে ‘১৮):- মুখ্যমন্ত্রীর সাধের প্রয়াস “সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ”-নামক আইনকে কার্যতঃ কাঁচকলা দেখিয়ে, হেলমেটহীন অবস্থায় বাইক চাপলেন দমদমের সাংসদ সৌগত রায় ৷

আসন্ন ত্রি-স্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রচারে অংশ নিতে এসে খড়দার বুকে আইন ভাঙার এই খেলায় সামিল হলেন বর্ষীয়ান নেতা তথা দমদম লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূলী সাংসদ সৌগত রায় ৷

সৌগত রায়-এর আইন লঙ্ঘনের এই প্রচেষ্টাকে এখনো পর্যন্ত দলীয় সংগঠন থেকে ভর্ৎসিত না করার জন্য দলীয় মহলেই হাসির খোরাক হচ্ছে এই আইন ৷

আইন ভঙ্গের বিরল থেকে বিরল ঘটনার সাক্ষী থাকা জনগণ জানিয়েছেন, “তবে কি সৌগত রায়-এর প্রাণরক্ষার বিষয় চিন্তিত নয় ট্রাফিক বিভাগ , নাকি মুখ্যমন্ত্রীর পুলিশ শুধুমাত্র গরীব মানুষেরই রক্ত চোষে ?”

প্রসঙ্গতঃ বলে রাখা ভালো, উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বারাকপুর মহকুমার অন্তর্গত খড়দহ ৫৬ নম্বর বাস ষ্ট্যাণ্ড থেকে পঞ্চায়েত এর প্রার্থীদের সমর্থনে তৃনমুল কংগ্রেস এর বাইক মিছিলে গতকাল হেলমেট বিহীন অবস্থায় দেখা যায় সাংসদ সৌগত রায়-কে ।
না ,সৌগতবাবু কোনো অশিক্ষিত ব্যক্তি নন ৷ ব্যক্তিগত জীবনে উনি একজন অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ৷
একজন আদর্শ শিক্ষকের আইনভঙ্গের এহেন প্রচেষ্টা দেখে বেজায় ক্ষিপ্ত সাধারণ জনগণ ৷

যদিও জেলা তৃণমূল কংগ্রেস-এর একাংশ জানিয়েছে, “হেলমেট পড়লে দূর থেকে সাধারণ মানুষ কেউই ওনাকে চিনতে পারতেননা ৷ তাই বাধ্য হয়েই ওভাবে ওঁনাকে যেতে হয়েছিল ৷”

জেলা তৃণমূল কংগ্রেস এভাবে বিষয়টাকে লঘু করতে চাইলেও, জেলার রাজনৈতিক শিবির এই বিষয়ে জোর প্রচার চালাচ্ছে ৷ তাদের সাফ কথা , “হাঁড়ির ভেতরকার একটা চাল টিপলেই যেমন ভাতের অবস্থা বোঝা যায় , ঠিক তেমন সৌগতবাবুর কর্মকাণ্ড দেখলেই বোঝা যচ্ছে, তিনি মুখ্যমন্ত্রীর বানানো এই আইনকে মান্যতা দিতে আদৌ রাজি নন ৷”

রাজনৈতিক কচকচির মধ্যে দাঁড়িয়ে স্থানীয় অঞ্চলেরই এক যুবক জানান, কদিন আগে বাড়ী ফেরার পথে দেখি স্থানীয় এক বয়স্ক মানুষ রাস্তায় হোঁচট খেয়ে পড়ে গিয়ে আহত হয়েছেন ৷ পা দিয়ে রক্তপাত হচ্ছে , ঐ অবস্থায় ওঁনাকে নিজের বাইকে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে ট্রাফিক পুলিশ আমাকে ধরে ফাইন করেন ৷ আমাকে ঐ ফাইনের টাকাও গুনতে হয়েছে ৷ এখন আমার প্রশ্ন , এখন কি ঐ পুলিশরাই কানা হয়ে গেলেন, না এই অপকর্মটাও মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় হচ্ছে ভেবে পুলিশ জড়স্বরূপ হয়ে গেছে ?”

গতকাল খড়দা অঞ্চলের পাতুলিয়া গ্রাম পঞ্চায়েত ও বন্দিপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীদের সমর্থনে আয়োজিত এক বাইক মিছিলে সৌগতবাবু অংশগ্রহণ করেন ৷ তিনি সওয়ারী হয়ে বসেছিলেন চালকের পেছনে ৷

বাইক মিছিলে সাংসদ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কাজল সিনহা,পাতুলিয়া গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান শুনু বৈশ্য, বন্দিপুর পঞ্চায়েতের প্রধান তাপস ঘোষ সহ খড়দহের তৃনমুল কংগ্রেস নেতা কর্মীরা ।

প্রতক্ষদর্শীদের কথা অনুযায়ী এই বাইক মিছিলে ১,৫০০ বাইক অংশ নিয়েছিল ।

বাইক মিছিল শেষে সাংসদ সৌগত রায় জানান, “আর কয়েক দিন পরই পঞ্চায়েত ভোট, তার আগে হাতে সময় কম তাই এই বাইক মিছিল এর আয়োজন করা হয়েছে ।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *