Categories: জেলা

এন আর সি ইস্যু নয় ,পারিবারিক দ্বন্ধই হনুমানবেশী প্রচারকের মৃত্যুর কারন

স্নেহাশিস মুখার্জি,নদীয়া: এন আর সি ইস্যুতে নয় পারিবারিক দ্বন্ধের কারণেই হনুমানবেশী প্রচারক নিবাস সরকার বিষ খেয়েছেন বলে দাবী দাদা বিদ্যুত সরকারের।নিবাস সরকার আত্মহত্যাকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন গণমাধ্যম এন আর সিকেই দায়ি করেছিল।তবে মৃতের দাদা ভাইয়ের বিষ খেয়ে আত্বহত্যার প্রসঙ্গে পারিবারিক দ্বন্ধকেই দায়ী করেন।যদিও মৃতের স্ত্রী এবং তার দুই ছেলে এই কথা স্বীকার করেন নি।
মৃতের স্ত্রী চম্পা সরকার জানান ,কর্মসূত্রে আমার স্বামী আমি এবং আমাদের দুই ছেলেকে নিয়ে রাজস্থানের উদয়পুরে থাকি।আমার স্বামি ওখানে চাঁদশি ডাক্তারি করতেন।আমিও তার সহকারি হিসাবে থাকতাম।উনি দুদিন আগে বগুলার মিলননগরে বসত বাড়িতে এসছিলেন।সেখান থেকে আমার কাছে আমার ভাড়াটিয়ার ফোন আসে যে নিবাসের শরীর খারাপ তারাতারি বারিতে আসবার জন্য।সেই শুনে আমি আমার ছেলেদের নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে চলে আসি।এলে শুনি ও বিষ খেয়ে আত্বহত্যা করেছে।আমাদের ৩০ বছর বিয়ে হয়েছে।আমাদের মধ্যে কোন অশান্তি হয়নি যাতে ওকে বিষ খেতে হবে।আর এনআরসি টা কোন ইস্যুই নয় , উনি কেন বিষ খেলেন আমাদের অজানা।
মৃত নিবাস সরকারের ছেলে পেশায় মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার নিউটন সরকারও জানান , এনআরসি কোন ইস্যুই নয়।এনআরসিকে ইস্যু করে কিছু বাজারি সংবাদ মাধ্যম তাদের রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে চাইছে।আমাদের এনআরসি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য আছে।বাবা কেন বিষ খেল তা আমাদেরকেও অবাক করেছে।মার সাথে বাবার সম্পর্ক ছিল বন্ধুর মত।এখানে পারিবারিক দ্বন্ধের কোন প্রশ্নই নেই।
অপরদিকে মৃতের দাদা বিদ্যুত সরকার জানান ,ভাইয়ের সাথে ভাইয়ের বউয়ের গণ্ডগোল লেগেই থাকত।সেদিনকার ঘটনা হয়ত এরই জের।
বিজেপির যুব মোর্চার নদীয়া উত্তরের সভাপতি ভাস্কর ঘোষ জানান , গণশক্তি একটা নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দলের মুখপাত্র।যেকারনে জন্য মোহম্মদ সেলিম গতকালকে নিজে টুইট করেছেন যে নিবাস সরকার নাকি এনআরসির ভয়ে আত্বহত্যা করেছেন।কিন্তু আমরা ভারতীয় জনতা পার্টির পক্ষ থেকে জানাচ্ছি গত লোকসভা নির্বাচনের সময় হনুমানবেশী প্রচারক হিসাবে বিজেপির হয়ে মিছিলে মানুষের সঙ্গে পা মিলিয়েছিল এই নিবাস সরকার।কিন্তু তাঁর যে এই অকাল মৃত্যু এই অকাল মৃত্যুটা সম্পুর্ণ তার পারিবারিক , কারণ তার ছেলে নিউটনের সঙ্গে কথা বলেও জানা যায় এনআরসি নিয়ে তার বাবা নিবাস সরকারের কোন চিন্তা ছিল না।কিন্তু অপরদিকে সিপিএমএর বড় নেতারা যদি মনে করেন যে কেউ আত্বহত্যা করলেই এনআরসির ভয়ে করেছেন তাহলে সেইসব নেতারা প্রমাণ করছেন তাঁরা অন্তর্যামী।তাই সেক্ষেত্রে তাঁদের আমরা বলতে চাই তাঁরা রাজনিতী ছেড়ে দিয়ে বটতলায় বসে মানুষের ভাগ্য পরিক্ষা করুক। কারণ মানুষের মৃত্যু হলেই যখন তাঁরা ধারণা করে বলতে পারে তখন তাঁদের রাজনিতীতে থাকা উচিত নয় বটতলায় বসে জ্যোতিষচর্চা করা উচিত।

Share

Recent Posts

প্রেমিকাকে মোবাইল ফোনে ডেকে মারধর প্রেমিকের

শুভঙ্কর অধিকারী, বসিরহাট(১৭ অক্টোবর): বসিরহাট মহকুমার হাসনাবাদ থানার পূর্ব খেজুরবাড়িয়া গ্রামের ঘটনা। হিঙ্গলগঞ্জ মহা বিদ্যালয়ের এর প্রথম বর্ষের ছাত্রী বয়স… Read More

21 mins ago

ত্রিকোণ প্রেমের জেরে খুন নাকি এর পেছনে রয়েছে অন্য কোন কারণ তদন্তে পুলিশ

শুভঙ্কর অধিকারী, নিমতা(১৭ অক্টোবর): নবমীর শেষ রাতে নিমতার বঙ্কিম মোড়ে গাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছিল দমদমের বাসিন্দা দেবাঞ্জন দাসের দেহ। ওই… Read More

24 mins ago

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য পুলিশে আস্থা নেই খোদ রাজ্যপালের তাই পাঁচজন কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা কর্মী পাঠাচ্ছে কেন্দ্র

হীরক মুখোপাধ্যায় (১৭ অক্টোবর '১৯):-পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য পুলিশে আস্থা নেই খোদ রাজ্যপালের তাই রাজ্যপালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করতে বিশেষ শিক্ষিত পাঁচজন… Read More

27 mins ago

বর্তমান যুগের সাথে তাল মিলিয়ে শ্রীমদ্ভগবদগীতার বাস্তবতা (দ্বিতীয় পর্ব)

অর্পিতা সিনহা,বাঁকুড়া(১৫অক্টোবর): তৃতীয় অধ্যায়,কর্মযোগ : অর্জুন বললেন হে পরমেশ্বর কর্ম অপেক্ষা জ্ঞানই যদি শ্রেষ্ঠ হয় তাহলে মানুষ কেন এত হিংসা… Read More

2 hours ago

জাতীয় পতাকা উল্টোভাবে উত্তোলন করে রাজ্য সরকারের মুখ পোড়াল ডিরেক্টরেট অব কমার্সিয়াল ট্যাক্সেস

হীরক মুখোপাধ্যায় (১৬ অক্টোবর '১৯):- আজ সকালে ভারতের জাতীয় পতাকা উল্টোভাবে উত্তোলন করে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে সীমাহীন লজ্জার সামনে ফেলল সল্টলেকে… Read More

1 day ago

বর্তমানে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে শ্রীমদ্ভগবদগীতার বাস্তবতা

অর্পিতা সিনহা,বাঁকুড়া(১৫অক্টোবর ): শ্রীমদ্ভগবদগীতা হিন্দুদের প্রাচীন ধর্মগ্রন্থ। গীতা ৭০০টি শ্লোক ও১৮ টি অধ্যায় নিয়ে রচিত। শ্রীমদ্ভগবদগীতা ভগবান শ্রীকৃষ্ণের মুখ নিঃসৃত… Read More

1 day ago