Categories: জেলা

আমাদের ছেলেবেলা

 সঞ্চিতা সিনহা, বাঁকুড়া (১০ সেপ্টেম্বর ):  ছোটবেলার সেই হারিয়ে যাওয়া দিনগুলি যেন বার বার আমাদের পিছু ডাকে। কিন্তু  আজকের বাচ্চাদের ছোটবেলা বলে কিছুই নেই তাদের দু’বছর বয়স হতে না হতেই প্লে স্কুলে ভরতি করে দেওয়া হয়৷ সেই থেকেই তাদের পড়াশুনো শুরু হয়ে যায়৷ সকাল হলেই বইয়ের বোঝা ভরতি ব্যাগ কাঁধে নিয়ে তারা বিদ্যালয়ে ছুটে ,অতিরিক্ত পড়ার চাপ, তার সঙ্গে সঙ্গে গান, নাচ, আঁকা, সব মিলেই আজকের শিশুরা এতই ব্যস্ত যে বাড়ির বাইরে গিয়ে খেলাধুলার সময় তাদের আর নেই তাই তারা যেটুকু অবসর সময় পায় সেই সময় তারা মোবাইলে ডুবে থাকে।কিন্তু  আমাদের সময় মোবাইলের তেমন প্রচলন না থাকায় আমাদের বেশীরভাগ সময় কাটত খেলার মাঠে কিম্বা বন্ধু দের সঙ্গে গল্পের মাধ্যমে।আমাদের সেই সোনালী যুগকে আজ আর খুঁজে পাওয়া যায় না।আসুন না দেখেনি কেমন ছিল আমাদের সেই ছেলবেলা……
কোনো ফলের বীজ যখন খেয়ে নিতাম তখন সবাই বলত তোর পেটে এবার ফলের গাছ হবে,তুই মানুষ থেকে এবার গাছে পরিণত হবি তখন কথাটি শুনে খুব ভয়ই লাগত।আবার যখন ছাদ থেকে আকাশটা দেখতাম তখন মনে হতো আর একটু  সামনের দিকে এগিয়ে গেলেই আমি আকাশ কে ছুঁতে পারব।কখনও বা বাড়ির দরজার পিছনে লুকিয়ে থাকতাম কেউ এলে তাকে চমকে দেবো বলে কিন্তু  যখন দেখতাম সে অন্য কারুর সঙ্গে গল্প করছে আর আসতে দেরি করছে তখন নিজেই মুখ শুকনো করে বেরিয়ে আসতাম।
আবার বিদ্যালয়ের চারদেওয়ালের মধ্যে আমাদের শৈশবকাল ছিল যেন জীবন্ত। দুষ্টুমির পর শ্রেণীকক্ষে যখন শিক্ষক মহাশয় প্রবেশ করতেন তখন সবাই শান্ত হয়ে বসে পড়তাম এমন ভাব দেখাতাম যেন কেউ কিছুই করিনি শিক্ষক মহাশয় বারবার জানতে চাইলেও কেউ কিছু  বলতাম না,কখনও এমনও হয়েছে একজন দোষ করেছে আর গোটা শ্রেণী শাস্তি ভোগ করেছে।শুধু  তাই নয় পড়া ধরার সময় যদি কয়েকজন পড়া না পারত তাহলে বাকিরা পড়ে গেলেও পড়া না বলে কান ধরে দাঁড়িয়ে পড়ত।এছাড়াও ছিল আরও নানান ধরনের বদমাইশি যেমন পেনের কালি বার করে তা দিয়ে অন্য বন্ধুর খাতার পেছনে ছবি আঁকা,চকের গুড়ো দিয়ে বোর্ডে নানা ছবি এঁকে নিজেদের সৃজনী প্রতিভা দেখান,বৃষ্টির দিনে ছাতা থাকা সত্ত্বেও ভিজে বাড়ি ফেরা সত্যিই সেগুলি ছিল এক অপূর্ব অনুভূতি যেগুলি বড়ো হবার সঙ্গে সঙ্গে শুধু  স্মৃতিতেই আবদ্ধ থেকে গেছে।
তবে সবথেকে কষ্ট হতো যখন ভোরবেলায় মা ঘুম থেকে তুলে গানের রেওয়াজ করতে বলত আর তারপর বলত পড়তে বসতে অবশ্য সেই সময় বই আর খুঁজে পাওয়া যেত না মা সরস্বতীর কৃপায় বই তখন খাটের তলায় সারা বাড়ি খোঁজ করেও বইয়ের আর হদিশ পাওয়া যেত না।ছুটির দিনগুলিতে বাড়ির বড়োদের কাছে গল্প শোনা আর সেই গল্প শুনে সেগুলিকে সত্যি মনে করে আকাশ কুসুম কল্পনা করে সেগুলি আঁকার মাস্টারমশাই এর কাছে বর্ণনা করা।সবথেকে মজা লাগত যখন আঁকার শিক্ষক আমাকে বলত আমার এই ধারণা গুলিকে আঁকার মাধ্যমে তুলে ধরতে তাঁর এই অনুপ্রেরণা আমাকে উৎসাহিত করে তুলত নতুন কিছু  আঁকতে।অনেক সময় এমনও মনে হতো যে আমি বড়ো হয়ে আঁকার শিক্ষকের মতো একজন শিক্ষক হব।
কিন্তু  বড়ো হবার সঙ্গে সঙ্গে ছোটোবেলার সেই স্বপ্ন কোথায় যেন হারিয়ে গেল।বিদ্যালয়ের গণ্ডি পার করে যখন কলেজে পা রাখলাম তখন দেখলাম বাস্তব বড়ই কঠিন এখানে কেউ কারও বন্ধু  নয় সবাই নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির চেষ্টায় ব্যস্ত।আরও বেশি অবাক লাগে যখন এই প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের দেখি তারা যেন শৈশব থেকেই এক অদৃশ্য প্রতিযোগিতায় নেমে পড়েছে তাদের ছেলেবেলা বলে কিছুই নেই সেই দিক থেকে আমরা খুবই সুখী ছিলাম কারণ আমাদের অভিভাবকরা আমাদের কঠোর শাসনে রাখলেও আমারা যদি কখনও কোনো ভালো কাজ করতে চেয়েছি তখন সেটি করতে আমাদের উৎসাহিত করত।তাই হয়ত আজ এতোদিন পারেও শৈশবের কথা মনে করতে গিয়ে চোখের কোণে জল দেখা দিল।

Share

Recent Posts

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৪ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

অভীক মিত্র, বীরভূম(২৩ জানুয়ারি):  আজ বেলা এগারোটায় যথাচিত মর্যাদার সঙ্গে রাজগ্রাম মডেল স্কুলে উদযাপিত হলো ভারতগৌরব নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৪… Read More

23 hours ago

বর্তমানে বাংলা মাধ্যমের তুলনায় ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়গুলির রমরমা হওয়ার কারণ:

অর্পিতা সিনহা,বাঁকুড়া(২৩ জানুয়ারি,২০২০): নগরকেন্দ্রিক সভ্যতায় গরিব,বড়োলোক প্রত্যেক বাবা-মা চায় তাদের সন্তানকে ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়ে পড়াতে। কারণ বর্তমানে জীবনের প্রতিটি ক্ষণে… Read More

23 hours ago

পৃথিবীতে মেয়েদের জীবন কি শুধুমাত্র মানিয়ে নেওয়ার জন্যই?

সঞ্চিতা সিনহা,বাঁকুড়া,(২৩ জানুয়ারি ২০২০): পৃথিবীর সুন্দর রূপ -রস -গন্ধ অনুভব করার আগেই একটি মেয়ের জীবনে নেমে আসে দুঃখের ছায়া। যার… Read More

23 hours ago

রাজগ্রামে রক্তদান শিবির

অভীক মিত্র, বীরভূম(২২ জানুয়ারি):  বুধবার সকাল থেকে বীরভূম জেলার মুরারই এক নম্বর ব্লকের রাজগ্রাম আজাদ সংঘের পরিচলনায় স্বেচ্ছায় রক্তদানের শিবির… Read More

2 days ago

শান্তিপুরে তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার বিধায়ক ঘণিষ্ঠ শান্তিপুরের প্রাক্তণ ভাইস চেয়ারম্যান

স্নেহাশিস মুখার্জি, নদীয়া(১৮ জানুয়ারি): শান্তিপুরে তৃনমূল কর্মী সান্তনু মাহাতো খুনের ঘটনায় গ্রেফতার শান্তিপুরের প্রাক্তন ভাইস চেয়ারম্যান তৃণমূল নেতা কুমারেশ চক্রবর্তী… Read More

6 days ago

চায়ের দোকানে লরি, মৃত দুই

অভীক মিত্র,বীরভূম(১৮ জানুুয়ারি): শনিবার সকাল আটটার সময় সারবোঝায় একটি দশচাকা লড়ি সাঁইথিয়া থেকে লোকপাড়ার দিকে যাওয়ার সময় বাসুদেবপুর স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সামনে… Read More

6 days ago