Categories: জেলা

আমাদের ছেলেবেলা

 সঞ্চিতা সিনহা, বাঁকুড়া (১০ সেপ্টেম্বর ):  ছোটবেলার সেই হারিয়ে যাওয়া দিনগুলি যেন বার বার আমাদের পিছু ডাকে। কিন্তু  আজকের বাচ্চাদের ছোটবেলা বলে কিছুই নেই তাদের দু’বছর বয়স হতে না হতেই প্লে স্কুলে ভরতি করে দেওয়া হয়৷ সেই থেকেই তাদের পড়াশুনো শুরু হয়ে যায়৷ সকাল হলেই বইয়ের বোঝা ভরতি ব্যাগ কাঁধে নিয়ে তারা বিদ্যালয়ে ছুটে ,অতিরিক্ত পড়ার চাপ, তার সঙ্গে সঙ্গে গান, নাচ, আঁকা, সব মিলেই আজকের শিশুরা এতই ব্যস্ত যে বাড়ির বাইরে গিয়ে খেলাধুলার সময় তাদের আর নেই তাই তারা যেটুকু অবসর সময় পায় সেই সময় তারা মোবাইলে ডুবে থাকে।কিন্তু  আমাদের সময় মোবাইলের তেমন প্রচলন না থাকায় আমাদের বেশীরভাগ সময় কাটত খেলার মাঠে কিম্বা বন্ধু দের সঙ্গে গল্পের মাধ্যমে।আমাদের সেই সোনালী যুগকে আজ আর খুঁজে পাওয়া যায় না।আসুন না দেখেনি কেমন ছিল আমাদের সেই ছেলবেলা……
কোনো ফলের বীজ যখন খেয়ে নিতাম তখন সবাই বলত তোর পেটে এবার ফলের গাছ হবে,তুই মানুষ থেকে এবার গাছে পরিণত হবি তখন কথাটি শুনে খুব ভয়ই লাগত।আবার যখন ছাদ থেকে আকাশটা দেখতাম তখন মনে হতো আর একটু  সামনের দিকে এগিয়ে গেলেই আমি আকাশ কে ছুঁতে পারব।কখনও বা বাড়ির দরজার পিছনে লুকিয়ে থাকতাম কেউ এলে তাকে চমকে দেবো বলে কিন্তু  যখন দেখতাম সে অন্য কারুর সঙ্গে গল্প করছে আর আসতে দেরি করছে তখন নিজেই মুখ শুকনো করে বেরিয়ে আসতাম।
আবার বিদ্যালয়ের চারদেওয়ালের মধ্যে আমাদের শৈশবকাল ছিল যেন জীবন্ত। দুষ্টুমির পর শ্রেণীকক্ষে যখন শিক্ষক মহাশয় প্রবেশ করতেন তখন সবাই শান্ত হয়ে বসে পড়তাম এমন ভাব দেখাতাম যেন কেউ কিছুই করিনি শিক্ষক মহাশয় বারবার জানতে চাইলেও কেউ কিছু  বলতাম না,কখনও এমনও হয়েছে একজন দোষ করেছে আর গোটা শ্রেণী শাস্তি ভোগ করেছে।শুধু  তাই নয় পড়া ধরার সময় যদি কয়েকজন পড়া না পারত তাহলে বাকিরা পড়ে গেলেও পড়া না বলে কান ধরে দাঁড়িয়ে পড়ত।এছাড়াও ছিল আরও নানান ধরনের বদমাইশি যেমন পেনের কালি বার করে তা দিয়ে অন্য বন্ধুর খাতার পেছনে ছবি আঁকা,চকের গুড়ো দিয়ে বোর্ডে নানা ছবি এঁকে নিজেদের সৃজনী প্রতিভা দেখান,বৃষ্টির দিনে ছাতা থাকা সত্ত্বেও ভিজে বাড়ি ফেরা সত্যিই সেগুলি ছিল এক অপূর্ব অনুভূতি যেগুলি বড়ো হবার সঙ্গে সঙ্গে শুধু  স্মৃতিতেই আবদ্ধ থেকে গেছে।
তবে সবথেকে কষ্ট হতো যখন ভোরবেলায় মা ঘুম থেকে তুলে গানের রেওয়াজ করতে বলত আর তারপর বলত পড়তে বসতে অবশ্য সেই সময় বই আর খুঁজে পাওয়া যেত না মা সরস্বতীর কৃপায় বই তখন খাটের তলায় সারা বাড়ি খোঁজ করেও বইয়ের আর হদিশ পাওয়া যেত না।ছুটির দিনগুলিতে বাড়ির বড়োদের কাছে গল্প শোনা আর সেই গল্প শুনে সেগুলিকে সত্যি মনে করে আকাশ কুসুম কল্পনা করে সেগুলি আঁকার মাস্টারমশাই এর কাছে বর্ণনা করা।সবথেকে মজা লাগত যখন আঁকার শিক্ষক আমাকে বলত আমার এই ধারণা গুলিকে আঁকার মাধ্যমে তুলে ধরতে তাঁর এই অনুপ্রেরণা আমাকে উৎসাহিত করে তুলত নতুন কিছু  আঁকতে।অনেক সময় এমনও মনে হতো যে আমি বড়ো হয়ে আঁকার শিক্ষকের মতো একজন শিক্ষক হব।
কিন্তু  বড়ো হবার সঙ্গে সঙ্গে ছোটোবেলার সেই স্বপ্ন কোথায় যেন হারিয়ে গেল।বিদ্যালয়ের গণ্ডি পার করে যখন কলেজে পা রাখলাম তখন দেখলাম বাস্তব বড়ই কঠিন এখানে কেউ কারও বন্ধু  নয় সবাই নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির চেষ্টায় ব্যস্ত।আরও বেশি অবাক লাগে যখন এই প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের দেখি তারা যেন শৈশব থেকেই এক অদৃশ্য প্রতিযোগিতায় নেমে পড়েছে তাদের ছেলেবেলা বলে কিছুই নেই সেই দিক থেকে আমরা খুবই সুখী ছিলাম কারণ আমাদের অভিভাবকরা আমাদের কঠোর শাসনে রাখলেও আমারা যদি কখনও কোনো ভালো কাজ করতে চেয়েছি তখন সেটি করতে আমাদের উৎসাহিত করত।তাই হয়ত আজ এতোদিন পারেও শৈশবের কথা মনে করতে গিয়ে চোখের কোণে জল দেখা দিল।

Share

Recent Posts

শিব ঠাকুরের আপন দেশে ,আইন কানুন সর্বনেশে ….. বারাসাত হাসপাতালে চিকিৎসকের ব্যবসার মাশুল গুনছেন রোগীর পরিবার ॥*

শুভঙ্কর অধিকারী,বারাসত(২০ সেপ্টেম্বর):  রোগী বধ্য । ব্যবসা মূলকথা । হাসপাতালে রুগী না দেখে ডিউটি আওয়ার্সে চিকিৎসকের প্রাইভেট চেম্বারে চিকিৎসা চলছে ।… Read More

1 hour ago

ব্যর্থ কোলকাতা পুলিশ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে উদ্ধার করতে ঘটনাস্থলে আসতে হল রাজ্যপালকে

হীরক মুখোপাধ্যায় (১৯ সেপ্টেম্বর '১৯):- আন্দোলনের নামে আজ দুপুর থেকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে দাঁড়িয়ে পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষাঙ্গনের মুখ কালিমালিপ্ত করল বাম… Read More

19 hours ago

খড়গপুরে পিস্তল ও মোবাইল সহ আটক ১

নিজস্ব প্রতিনিধি,খড়গপুর(১৯ সেপ্টেম্বর):-পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়গপুর শহরের পর পর তিন বার গুলি চলার ঘটনা ঘটলো।অবশ্য তার রেশ কাটতে না কাটতেই… Read More

1 day ago

খড়গপুর টাউন থানায় বিজেপির ডেপুটেশন

নিজস্ব প্রতিনিধি, খড়গপুর(১৯ সেপ্টেম্বর):-পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়গপুর শহরে বৃহস্পতিবার সকাল প্রায় সাড়ে এগারোটা নাগাদ শান্তি পূর্ণ ভাবে খড়গপুর টাউন থানার… Read More

1 day ago

বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার

ব্রজেশ্বর রায়, দিনহাটা(১৮ সেপ্টেম্বর) : গোপন সূত্রে খবর পেয়ে দিনহাটা ২ নং ব্লকের পূ্র্ব শিকারপুর গ্রামে বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ এক… Read More

2 days ago

জোরপাকুড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ে “মাল্টি জিম”আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন

ব্রজেশ্বর রায়,দিনহাটা(১৮ সেপ্টেম্বর) : বুধবার দিনহাটা -১ নং ব্লকের জোরপাকুড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ে "মাল্টি জিম"আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হলো। উদ্বোধন করেন দিনহাটা… Read More

2 days ago